প্রিয় ফলটি যখন ত্বকের পরম বন্ধু!

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on pinterest

আমাদের সুস্থ ভাবে বেঁচে থাকার জন্যে যেমন খাদ্য এবং পরিপূর্ণ যত্নের প্রয়োজন হয়, তেমনি আমাদের ত্বকেরও পরিপূর্ণ খাদ্য এবং যত্নের দরকার পড়ে। আর ত্বকের প্রয়োজন যখন আমরা মেটাতে ব্যর্থ হই, তখন ত্বক হয়ে যায় মলিন এবং নির্জীব। তাই আজ জানাবো, কীভাবে মাত্র ২টি ধাপেই নির্জীব ত্বকে প্রাণ ফিরিয়ে আনতে পারবেন।

১ম ধাপ (ফেইস স্ক্রাব)

প্রথম ধাপ টি হলো স্ক্রাব। মুখ ভালো করে এই স্ক্রাবটি ব্যবহার করতে হবে। প্রথমে জেনে নিই, এই স্ক্রাবটি তৈরি করতে কী কী লাগছে।

(১) স্ট্রবেরী

স্ট্রবেরী স্কিনের ব্রণের দাগ হালকা করতে সাহায্য করে। স্ট্রবেরীতে স্কিন লাইটেনিং এক্সট্রাকস এবং এলাজিক এসিড রয়েছে, যা স্কিনের দাগছোপ দূর করে স্কিনকে গ্লোয়িং করে তোলে। এটি স্কিনের অতিরিক্ত অয়েল দূর করে এবং পিম্পল প্রব্লেম দূর করে। স্ট্রবেরীতে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট এলাজিক এসিড আছে, যা কোলাজেন ডিস্ট্রাকশন প্রতিরোধ করে। যা কিনা রিংকেলের প্রধান কারণ। যার ফলে স্কিনের রিংকেল প্রবলেমও দূর হয়। এছাড়াও এটি সূর্যের ইউ ভি রশ্মি থেকে স্কিনকে প্রটেক্ট করে।

(২) আমন্ড বাদাম

আমন্ড বাদাম স্কিনের ডেড স্কিন সেলস দূর করে। এটি স্কিনের এক্সট্রা অয়েল এবং ময়লা দূর করে ত্বকের পোর-গুলো ক্লিন করে দেয়। যার ফলে স্কিন ফ্রেশ ফিল হয়।

(৩) মধু

মধুকে ন্যাচারাল ময়েশ্চারাইজার বলা হয়। কারণ এটি স্কিনকে সফট এবং গ্লোয়িং বানিয়ে দেয়। এতে রয়েছে অ্যান্টি ব্যাক্টেরিয়াল এজেন্ট, যা পিম্পল প্রবলেম দূর করে। এছাড়াও মধুতে ন্যাচারাল ব্লিচিং এজেন্ট রয়েছে যা, স্কিন লাইটেনিং এ হেল্প করে।
যেভাবে তৈরি করবেন –

– একটা স্ট্রবেরী নিন। একটি কাঁটা চামচের সাহায্যে ভালোমতো ম্যাশ করে নিন।

– এবার ৪-৫ টি আমন্ড বাদাম নিয়ে এগুলো ব্লেন্ডারে গুড়ো করে নিন। তবে খেয়াল রাখবেন, খুব ফাইনলি যেন গুড়ো করা না হয়। একটু দানা দানা যেন থাকে।

– এবার স্ট্রবেরী, আমন্ড বাদামের গুড়ো এবং হাফ চা চামচ মধু একসাথে মিশিয়ে নিন। ব্যস, আপনার ফেইস স্ক্রাব রেডি।

ব্যবহারবিধি –

মুখ ফেইসওয়াস দিয়ে ভালোভাবে পরিষ্কার করে নিন। এবার স্ক্রাব নিয়ে মুখ এবং গলায় ভালোভাবে লাগিয়ে সার্কুলার মোশনে ম্যাসাজ করে নিন ২ মিনিট। তবে চোখের এড়িয়া বাদ রেখে ম্যাসাজ করবেন। ২ মিনিট ম্যাসাজ করার পর নরমান পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন এবং মুখ মুছে নিন।

২য় ধাপ (ফেইস মাস্ক)

ফেইস মাস্ক তৈরী করতে যা যা লাগবে –

(১) স্ট্রবেরী

স্ট্রবেরীর গুণ সম্পর্কে আগেই বলা হয়েছে।

(২) অ্যালোভেরা জেল

অ্যালোভেরায় প্রচুর পরিমানে ভিটামিন সি, ই এবং বিটা ক্যারোটিন রয়েছে। যা স্কিনকে নারিশ, হাইড্রেট এবং ময়েশ্চারাইজ করে।

(৩) মধু

মধুর গুণ সম্পর্কেও আগেই জেনেছেন।

(৪) এক্সট্রা ভার্জিন অলিভ অয়েল

অলিভ অয়েল স্কিনকে সফট এবং ময়শ্চারাইজ করে। আপনার স্কিন অয়েলি হলে এই উপকরণটি বাদ দিতে পারেন অথবা সামান্য পরিমানে ব্যবহার করতে পারেন।)

যেভাবে তৈরী করবেন –

– একটি ব্লেন্ডারে ৪-৫ টি স্ট্রবেরী নিয়ে ভালোভাবে ব্লেন্ড করে নিন। এবার স্ট্রবেরী পাল্প থেকে ৩ টেবিল চামচ পাল্প একটি বাটিতে নিয়ে নিন।

– এর মধ্যে ১ চা চামচ অ্যালোভেরা জেল, ১ চা চামচ মধু এবং হাফ চা চামচ এক্সট্রা ভার্জিন অলিভ অয়েল নিন। একটি চামচের সাহায্যে ভালোভাবে মিশিয়ে নিন।

ব্যবহারবিধি –

একটি ক্লিন ফেইস ব্রাশ অথবা আঙুলের সাহায্যে আই এড়িয়া বাদে পুরো ফেইস এবং গলায় এই মাস্কটি লাগিয়ে নিন। ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। ২০ মিনিট পর হাত একটু পানি দিয়ে ভিজিয়ে ফেইস ম্যাসাজ করুন ৫ মিনিট। এরপর নরমান পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলে টোনার এবং ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন।

এই তো জেনে নিলেন, কীভাবে নির্জীব ত্বকে প্রাণ ফিরিয়ে আনবেন। ভালো থাকুন।

লিখেছেন – জান্নাতুল মৌ
সোর্স – shajgoj.com

Subscribe to our Newsletter

সম্পর্কিত আরো লেখা সমূহ