ভালবাসা নিয়ে বিজ্ঞান কি বলে?

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on pinterest

পৃথিবী শুধুই ভালবাসাময়। অন্তত প্রেমিক প্রেমিকারা হয়ত এমনটাই বিশ্বাস করে। প্রেমের উন্মাদনায় সাত সমুদ্র পাড়ি দেয়া এমনকি মৃত্যুর মত কঠিন বিষয়টিকেও মেনে নেয় অনেকেই।

পৃথিবীতে যত রকম ভাললাগার অনুভূতি আছে তার মধ্যে প্রথম স্থানে রয়েছে ভালবাসার অনুভূতি৷ ভালবাসা এমন এক অনুভুতি যাকে বর্ণনার জন্য কোন বর্ণ বা ভাষার প্রয়োজন হয় না৷ কিন্তু এ নিয়ে অনেক গুলো সাইকোলজিক্যাল ফ্যাক্ট রয়েছে।

আসুন জেনে নেই ভালবাসা নিয়ে ১০টি সাইকোলজিকাল ফ্যাক্ট:

1. True Love
মনোবিজ্ঞান বলছে, যখন সত্যিকার অর্থে কারো প্রেমে পড়বেন বা মন থেকে কাউকে ভালবাসবেন তখন আপনার সবচেয়ে বেশি সুখ অনুভূত হবে৷ কারণ এই সময় আপনার মস্তিষ্ক থেকে এম্পডিয়া ও ডোপামিন নামক দুটি হরমোন নিঃসৃত হয় I যা আপনার মস্তিষ্কের ১২ জায়গায় প্রবাহিত হয়ে আপনাকে পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ সুখের অনুভূতি দিবে৷

2. Impression
ইম্প্রেশন কে ভালবাসার প্রথম ও শেষ ধাপ হিসেবে ধরা হয়। কাউকে পছন্দ করতে বা অপছন্দ করতে একজন মানুষের মস্তিষ্ক মাত্র ৪ মিনিট সময় নেয়। তাই আপনি কারো সাথে প্রথম সাক্ষাৎ করতে প্রথম ৪ মিনিটের মধ্যে খুব চমৎকার ভাবে তার কাছে নিজেকে উপস্থাপন করুনI

3. Hug
মনোবিজ্ঞান বলছে হাগ কিংবা আলিঙ্গন আপনার নার্ভাস সিস্টেমে পেইন কিলার হিসেবে কাজ করে। তাই আপনার সঙ্গী কিংবা বন্ধুর মন খারাপ দেখলে তার সাথে আলিঙ্গন করতে ভুলবেন না।

4. Couple Arguing
মনোবিজ্ঞান বলছে, কারো ছোটখাটো কোন বিষয়ে রাগ করলে কিংবা মন খারাপ হয় তাহলে বুঝতে হবে তার জীবনে ভালবাসার ঘাটতি রয়েছে | অল্পতেই রাগান্বিত হয় কিংবা অল্পতে গোস্সা হয় এ ধরনের মানুষকে বেশি বেশি করে ভালবাসুন। দেখবেন তার মধ্যে একটা পরিবর্তন কাজ করছে।

5. Beautiful Face
মনোবিজ্ঞান বলছে, খুব সুন্দর মুখাবয়ব একটি আকর্ষণীয় বডি ফিটনেস এর থেকে বেশি আকর্ষিত করে। সুতরাং পরবর্তীতে কারো সাথে সাক্ষাৎ করতে গেলে মুখে অবশ্যই একটি মিষ্টি হাসি রাখবেন যেন প্রথম সাক্ষাতেই মানুষের মন জয় করে নিতে পারেন৷

6. I-Love -You
এটা জেনে আপনার অবাক লাগতে পারে যে, প্রায় ৯০ শতাংশ পুরুষ প্রথম আই লাভ ইউ বলে প্রপোজ করে। রিসার্চ থেকে পাওয়া গিয়েছে, মেয়েদের তুলনায় ছেলেরা প্রথমে তাদের ভালোলাগার কথা প্রকাশ করে। আরেকটি মজার তথ্য হলো, নভেম্বর মাসে আই লাভ ইউ কথাটি সবচেয়ে বেশি উচ্চারিত হয়।

7. Love+Love= Happy Life
যখন আপনি রোমান্টিক মুডে থাকেন তখন আপনার মস্তিষ্ক কম কাজ করে৷ মনোবিজ্ঞান বলছে, যিনি রোমান্টিক রিলেশনশিপ মেইন্টেইন করেছেন তিনি অনেক সুখি জীবন পার করেছেনI এই ধরনের মানুষদের কাছে ডিপ্রেশন কিংবা হার্ট অ্যাটাক এর মত রোগ ধারের কাছেও আসতে পারে না৷

8. Eye Contact Theory
কোন অপরিচিত মানুষের সাথে তিন থেকে চার মিনিট আই কন্টাক্ট কন্টিনিউ করতে পারলে আপনি একে অপরের মধ্যে একটি ইমোশনাল কানেকশন অনুভব করতে পারবেন৷ আর যদি আপনার পার্টনারের সাথে ৪ মিনিট আই কন্টাক্ট কন্টিনিউ করতে পারেন তাহলে আপনার এবং আপনার সঙ্গিনীর হার্ট বিট একই গতিতে চলতে থাকবে। এটি একটি ম্যাজিক্যাল লাভ। যার ব্যাখ্যা এখনো পর্যন্ত বিজ্ঞান দিতে পারেনি।

9. Meeting in Dangerous place can increase the chance of Attraction
গবেষণা বলছে আপনি যদি আপনার সঙ্গীর সাথে কোন ভয়ানক স্থানে মিলিত হন তাহলে স্বাভাবিকের তুলনায় একে অপরের প্রতি বেশি আকর্ষণ অনুভব করবেন। বিজ্ঞানীরা এটা প্রমাণ করার জন্য কিছু এক্সপেরিমেন্ট করেছেন যেমন, স্কাই রাইড, হরর মুভি ইত্যাদি। রিসার্চে প্রমাণিত হয়েছে, ভয়ানক পরিস্থিতির পর একে অন্যের প্রতি পূর্বের তুলনায় বেশি আকর্ষণ অনুভব করে। কারণ ভয়ানক মুহূর্তে আপনার মস্তিষ্ক থেকে (Dopamine love) নামক হরমন নিঃসৃত হয়। যদি আপনার পার্টনারের সাথে প্রথম সাক্ষাৎ করতে যান তাহলে পার্ক অথবা হরর মুভি আপনার জন্য ফলপ্রসূ হতে পারে।

10. The Magical Love Touch
একটি রিসার্চে ১০ জন রোগীর সাথে তাদের ভালোবাসার মানুষকে রাখা হয়েছিল আর বাকি ১০ জনের সাথে কিছু স্পেশালিস্ট ডাক্তার রাখা হয়েছিল। গবেষণায় দেখা গেছে, যে রোগীদের সাথে তাদের ভালোবাসার মানুষ ছিল তারা তুলনামূলকভাবে অন্য রোগীদের তুলনায় দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠে৷ কারণ মনোবিজ্ঞান বলছে, আমাদের ৭০% রোগ মনের সাথে সম্পর্কিত। আমাদের হাসি খুশি মন সুস্বাস্থ্য ধরে রাখার জন্য অনেক বড় ভূমিকা পালন করে। তাই আপনার সঙ্গী অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে ওষুধের পাশাপাশি বেশি বেশি ভালবাসুন, তাকে সঙ্গ দিন, সিকিউর ফিল করান দেখবেন সে স্বল্প সময়েই সুস্থ হয়ে উঠবেI

Subscribe to our Newsletter

সম্পর্কিত আরো লেখা সমূহ