হার্টের যত্ন নিন ভেষজ ওষুধের সাহায্য

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on pinterest

বর্তমানে বিশ্বের এক নম্বর মরণব্যাধি হচ্ছে হৃদরোগ যাকে আমরা হার্ট অ্যাটাক হিসেবে জেনে থাকি। যা কোনো রকম পূর্বাভাস ছাড়াই যেকোনো সময় কেড়ে নিতে পারে আপনার জীবন। তাই হার্টের যত্ন নেয়া আমাদের জন্য অত্যন্ত জরুরী। সারাবিশ্বে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রতি বছর প্রায় ২ কোটি লোক মৃত্যুবরণ করে। যার বেশির ভাগ নিম্ন ও মধ্যবিত্ত পর্যায়ের মানুষ।

হার্ট
সুত্র: World health rankings

একবার হার্ট এটাকে আক্রান্ত হলে প্রায় শতকরা ৪০ ভাগ রোগী হাসপাতালে চিকিৎসা নেওয়ার আগেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে।

হার্টের কর্মক্ষমতার ওপর বেঁচে থাকা, শক্তি, শারীরিক কর্মক্ষমতা, আবেগ অনুভূতি বলতে গেলে জীবনের সবকিছুই নির্ভরশীল। হার্টের দ্বারা রক্ত সঞ্চালনের মাধ্যমে শরীরের বিভিন্ন অংশে পুষ্টি এবং শক্তি সঞ্চালিত হয়, অক্সিজেন সরবরাহ হয় এবং কার্বনডাই অক্সাইড নির্গমন হয়।

অন্য যেকোনো অঙ্গ অকেজো বা নষ্ট হয়ে গেলে শুধু ওই অঙ্গের কার্যের ব্যাঘাত ঘটে, কার্যক্ষমতা লোপ পায়। কিন্তু হৃদপিণ্ড নষ্ট বা বন্ধ হয়ে গেলে মানুষ মারা যায়। তাই হার্ট ভালো থাকলে একজন মানুষ ভালো থাকবে, হার্ট কার্যক্ষম থাকলে মানুষটিও শক্তিশালী কার্যক্ষম থাকবে।

এই জরুরী অঙ্গটিকে ঠিক রাখতেই হবে এবং এবং তার জন্য যথাযথ চেষ্টা করতে হবে। প্রবাদ আছে, ‘প্রতিকারের চেয়ে প্রতিরোধই উত্তম’। তাই হার্ট কে সুস্থ স্বাভাবিক রাখার জন্য প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা নিতে হবে।

ঠিক এই প্রতিরোধ ব্যবস্থাই আমরা গড়ে তুলতে পারি আলাদীন এক্সিলেন্ট হার্ট কেয়ারের মাধ্যমে। যা সম্পুর্ন প্রাকৃতিক এবং ভেষজ উপাদানের মাধ্যমে তৈরি করা হয়েছে।

সম্পুর্ন ক্যামিকেল মুক্ত প্রাকৃতিক উপাদানে তৈরি যা আপনার হার্টের যত্নে অত্যন্ত কার্যকর।

ওষুধটি তৈরি করতে ব্যাবহার করা হয়েছে লিচিথিন নামক এক পদার্থ। যা ডিম, সয়াবিন, বাধা কপি, ফুলকপি ও অন্যান্য সবুজ সবজি থেকে সংগৃহীত। এটি একটি সম্পূরক ভেষজ। লিচিথিন প্রাকৃতিকভাবে উৎপাদিত একটি ফ্যাটি পদার্থ। এটি হৃদরোগ, মস্তিষ্ক এবং লিভারের রোগের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে।

এটির সবচেয়ে বড় ক্ষমতা হল কোলেস্টেরল হ্রাস করার ক্ষমতা। গবেষকরা আবিষ্কার করেছেন, লিচিথিন রক্তের প্রোফাইল গুলিতে এইচডিএল (ভাল) কোলেস্টেরল বাড়াতে এবং এলডিএল (খারাপ) কোলেস্টেরল হ্রাস করতে অবদান রাখতে পারে।

এটি মূলত এমুলিফায়ার হিসাবে কাজ করে, এর অর্থ এটি চর্বি এবং তেলগুলিকে স্থগিত করে এবং অন্যান্য পদার্থের সাথে মিশতে দেয় না।

হার্ট কেয়ারের কার্যকারিতা

১. কোলেস্টেরল ৪২%, এলডিএলের মাত্রা ৫৬% কমায়।

২. কার্ডিওভাসকুলার রোগ, মস্তিকের কার্যকারিতা, লিভার ও কিডনি সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।

৩. Gallbladder (গলব্লাডার ) এ্যাটাক ও পাথর নির্মূলে সাহায্য করে।

৪. White Cells (শেত্ব রক্তকণিকা) বৃদ্ধিতে কার্যকারী ভূমিকা রাখে।

৫. Breast Cancer (স্তন ক্যান্সারের ) Emulsifier  বৃদ্ধিতে কাজ করে।

৬. IgE Allergy প্রতিরোধক হিসাবে কাজ করে।

৭. অ্যালার্জি , এক্সিমা, ও হাঁপানি প্রতিরোধ করে (Leukotrienes মাধ্যমে )

৮. স্নায়ুকোষের ক্ষয়, টিস্যু এবং মস্তিকের উন্নতিতে সাহায্যে করে। 

৯. মহিলা ও পুরুষের স্মৃতিভ্রংশ প্রতিরোধ করে (Dementia & Alzheimer’s) । 

১০. এইডস, হারপিস, ক্রণিক ক্লান্তি সিন্ড্রোম এবং অটোইমিউন রোগের জন্য কার্যকরী।

সেবন বিধি

খাবারের পর ১-২ টি সফট জেল দৈনিক ১-২ বার অথবা অভিজ্ঞ কনসালটেন্ট এর পরামর্শ অনুযায়ী।

Subscribe to our Newsletter

সম্পর্কিত আরো লেখা সমূহ